আজ বন্ধু দিবস

প্রতি বছর আগস্ট মাসের প্রথম রোববার। উদযাপিত হয় বন্ধু দিবস।

হাতভর্তি ফ্রেন্ডশিপ ব্যান্ড, গ্রিটিংস কার্ড আর বন্ধুর ইনবক্সে উইশ- এভাবেই কেটে যায় বন্ধু দিবস। কিন্তু জানেন কি বন্ধু দিবস কীভাবে এলো?প্রাথমিকভাবে বন্ধু দিবসের কথা মাথায় আসে বিশ্বখ্যাত উপহারসামগ্রী ও কার্ড বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান হলমার্কের অন্যতম অংশীদার জয়েস হলের। তিনি প্রতি বছর ২ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধু দিবস উদযাপনের বিষয়টি সামনে আনেন।

তার এই উদ্যোগ থেকে বন্ধুদের মধ্যে কার্ড বিলি করার মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপনের চল শুরু হয়।অবশ্য তাঁর সে প্রচেষ্টা অতটা সফল হয়নি। ১৯৪০ সাল নাগাদ মানুষ বুঝতে পারে, এটা কোনও মহৎ উদ্দেশ্য নয়, বরং হলমার্কের কার্ড ব্যবসা বাড়ানোর ফন্দি।ইতিহাসের আরেকটি সূত্র থেকে জানা যায়, ১৯৩৫ সাল থেকেই বন্ধু দিবস উদযাপনের প্রথা চলে আসছে আমেরিকাতে। জানা যায়, ১৯৩৫ সালে আমেরিকার সরকার এক ব্যক্তিকে হত্যা করে।

দিনটি ছিল আগস্টের প্রথম শনিবার। তার প্রতিবাদে পরের দিন ওই ব্যক্তির এক বন্ধু আত্মহত্যা করেন।এরপরই জীবনের নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদান আর তাদের প্রতি সম্মান জানানোর লক্ষ্যেই আমেরিকান কংগ্রেসে ১৯৩৫ সালে আগস্টের প্রথম রোববারকে বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেন।২৭ এপ্রিল ২০১১ জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ৩০ জুলাইকে অফিসিয়াল ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডশিপ ডে ঘোষিত হয়।তবে জাতিসংঘ ঘোষিত দিবসকে বড় পরিসরে তেমনভাবে পালন করা হয় না। আগস্ট মাসের প্রথম রোববারকে সারা বিশ্বে বন্ধু দিবস পালিত হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

%d bloggers like this: