বাটলারের শট মাথায় লেগে হাসপাতালে লঙ্কান ক্রিকেটার

ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের মধ্যকার প্রস্তুতি ম্যাচের শেষ দিনের ঘটনা। ব্যাট করছিলেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান জস বাটলার। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানেরই সজোরে হাঁকানো একটি শট সরাসরি এসে আঘাত করে শর্ট লেগে দাঁড়ানো ২০ বছর বয়সী লঙ্কান তরুণ ক্রিকেটার মাথুম নিশাঙ্কার মাথায়।

সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে পড়ে যান নিশাঙ্কা। প্রাথমিক চিকিৎসার পরও জ্ঞান না ফেরায় সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। কিন্তু মাঠে থেকে যাওয়া বাটলার বেশ আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। আর হবেনই বা না কেন? রমন লাম্বা কিংবা ফিলিপ হিউজের মৃত্যু এখনো ভোলেনি ক্রিকেট-বিশ্ব। ভোলেননি ক্রিকেটাররাও।

তাই তো নিজের হাঁকানো শট মাথায় লেগে কোনো ক্রিকেটারকে লুটিয়ে পড়তে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন বাটলার। শেষ পর্যন্ত অবশ্য স্বস্তি ফিরেছে বাটলারের মনে। হাসপাতালে ফেরার পর জ্ঞান ফেরে নিশাঙ্কার। পরবর্তী সময়ে হাসপাতালে এমআরআই স্ক্যান করার পর খারাপ কিছু ধরা পড়েনি। তবে চিকিৎসক তাকে ছাড়েননি।

২৪ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছেন নিশাঙ্কাকে। চিকিৎসক অবশ্য জানিয়ে দিয়ে ভয়ের কিছু নেই। ভয় কাটলেও ওই পরিস্থিতিতে মনে কী চলছিল জানিয়ে বাটলার বলেন, ‘আমার মনে হয়, আপনি সবসময় এমন পরিস্থিতিতে খারাপ কিছুই ভাববেন। আমি খুব জোরে হিট করেছিলাম। আর খুব কাছে থেকে। তাই এটা অবশ্যই বড় দুশ্চিন্তার কারণ ছিল।’

বর্তমানে ভালো আছেন নিশাঙ্কা। এটাই স্বস্তি দিচ্ছে বাটলারকে। এ নিয়ে বাটলারের ভাষ্য, ‘যখন সে চলে গেল, আপনি তার জন্য কেবল ভালো কিছুই আশা করতে পারতেন। ডাক্তার এবং ফিজিও মাঠে এসে তাকে অনেক শুশ্রূষা করেছে। এটা বাজে একটা দুর্ঘটনা। তবে আমি শুনেছি সে ভালো আছে। খবরটা শুনে ভালো লাগছে।’

https://www.currentbdnews24.com

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

%d bloggers like this: